বিশেষ প্রতিবেদন

দুই সন্তানকে ‘হত্যা’র পর ‘আত্মহত্যাকারী’ নারী চিঠিতে যা লিখেছেন!


রাজধানীতে দুই সন্তানকে ‘গলা কেটে হত্যা’র পর নারীর ‘আত্মহত্যা’র ঘটনায় একটি চিঠি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

ওই নারীর নাম আনিকা (৩০)। তাঁর দুই সন্তানের মধ্যে মেয়ে শামীমার বয়স পাঁচ বছর। ছেলে আবদুল্লাহর বয়স তিন বছর। দুই সন্তানকে নিয়ে ২৯/১ ছোট দিয়াবাড়ি এলাকায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন তিনি।

চিঠিতে লেখা রয়েছে, ‘শামীম তোমার একটা ভুলের জন্য এত বড় ঘটনা, আমি শুধু শুনব না। তুমি সবার কথা ভাবো, আমাদের কথা ভাবো। আমি সবাইকে ছেড়ে চলে যাচ্ছি থাকব না, পৃথিবী ছেড়ে। আর বলেছিলাম না, আমি যেখানে, ওরা সেখানে। একটাই কষ্ট মা, ভাইবোন, নানি আর অনেকের মুখ দেখতে পারলাম না। ছেলেমেয়ে নিয়ে গেলাম, সবাই ভালো থেকো। মা আমি এই দুই হাত দিয়ে ওদের খাওয়াছি, তেল দিছি। আর আজ সেই হাত দিয়ে মারলাম। আমাকে তোমরা মাপ করে দিও। আমাদের কপালে এ ছিল, ওরা দুইজন নিষ্পাপ, আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়।’

দারুস সালাম থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শ্রীধাম বলেন, ঘটনাস্থল থেকে একটি চিঠি উদ্ধার করা হয়েছে। কিন্তু এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত তাঁর স্বামী শামীমকে আটক করা যায়নি। তাঁকে আটকের চেষ্টা চলছে।

পুলিশ জানায়, আজ মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর দারুস সালাম থানাধীন দিয়াবাড়ি এলাকায় একটি বাড়িতে দুই সন্তানকে গলা কেটে হত্যার পর ওই নারী সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। তবে এখনো এ ঘটনার কারণ নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ।

'বাসার বাজার করেছেন তো? বাজার করুন চালডালে - সময় বাচাঁন, খরচ বাচাঁন। সেরা দামে সবকিছু মাত্র এক ঘন্টায়।'

To Top
[X]