স্বাস্থ্য

১ গ্লাস পানীয়র ম্যাজিকে বিদায় হবে মেদ!

প্রতিদিন সকালে হেঁটে, ডায়েট ও শরীরচর্চা করেও মেদ কমাতে পারছেন না। তলপেটের চেপে বসা চর্বি যেন বার বার অবস্থানের বাইরে উকি দিচ্ছে। আয়নায় নিজেকে দেখে আপনার মন খারাপ হচ্ছে, শত চেষ্টা করেও কিছুতেই কমাতে পারছেন না বাড়তি মেদ। এ থেকে প্রতিকার পেতে চিকিৎসকের কাছেও যাচ্ছেন। গবেষণায় দেখা গেছে, আমাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় যে পরিমাণ রাসায়নিক উপাদান থাকে তা যে কারও শরীরের জন্য ক্ষতিকর। এ রাসায়নিক ও বেহিসাবি জীবনযাত্রা শরীরের মেটাবলিজমের হার অনেক কমিয়ে দেয়। এতে দেখা দেয় বাড়তি মেদ। তবে বাড়তি মেদ কমাতে আর চিকিৎসকের বাড়ি দৌড়াতে হবে না। আপনার হাতের কাছেই রয়েছে এর দ্রুত সমাধান। ঘরে থাকা উপদানে তৈরি বিশেষ একটি পানীয় প্রতিদিন মাত্র এক গ্লাস পান করলেই দেখবেন আপনার মেদ ম্যাজিকের মতো দূর হয়ে গেছে! ম্যাজিক পানীয় তৈরির উপকরণ বাতাবি লেবু অর্ধেক, শশা একটি, আদাবাটা এক চা চামচ, পার্সলে পাতা এক গোছা, ২ গ্লাস পানি। প্রস্তুত প্রণালী সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে জুস গ্লাসে ঢালুন। প্রতিরাতে ঘুমানোর আগে এ পানীয় একগ্লাস পান করুন। এক সপ্তাহেই এর ফল পাবেন হাতেনাতে। প্রতি রাতে ঘুমানোর আগে এ পানীয় পান করলে মেদ ভুঁড়ি কমবেই। এমনকি নিয়ন্ত্রণে থাকবে হাইপারটেনশন, ডায়াবেটিস। হৃদযন্ত্রও ভালো থাকবে।

প্রতিদিন সকালে হেঁটে, ডায়েট ও শরীরচর্চা করেও মেদ কমাতে পারছেন না। তলপেটের চেপে বসা চর্বি যেন বার বার অবস্থানের বাইরে উকি দিচ্ছে। আয়নায় নিজেকে দেখে আপনার মন খারাপ হচ্ছে, শত চেষ্টা করেও কিছুতেই কমাতে পারছেন না বাড়তি মেদ। এ থেকে প্রতিকার পেতে চিকিৎসকের কাছেও যাচ্ছেন।

গবেষণায় দেখা গেছে, আমাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় যে পরিমাণ রাসায়নিক উপাদান থাকে তা যে কারও শরীরের জন্য ক্ষতিকর। এ রাসায়নিক ও বেহিসাবি জীবনযাত্রা শরীরের মেটাবলিজমের হার অনেক কমিয়ে দেয়। এতে দেখা দেয় বাড়তি মেদ।

তবে বাড়তি মেদ কমাতে আর চিকিৎসকের বাড়ি দৌড়াতে হবে না। আপনার হাতের কাছেই রয়েছে এর দ্রুত সমাধান। ঘরে থাকা উপদানে তৈরি বিশেষ একটি পানীয় প্রতিদিন মাত্র এক গ্লাস পান করলেই দেখবেন আপনার মেদ ম্যাজিকের মতো দূর হয়ে গেছে!

ম্যাজিক পানীয় তৈরির উপকরণ

বাতাবি লেবু অর্ধেক, শশা একটি, আদাবাটা এক চা চামচ, পার্সলে পাতা এক গোছা, ২ গ্লাস পানি।

প্রস্তুত প্রণালী

সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে জুস গ্লাসে ঢালুন। প্রতিরাতে ঘুমানোর আগে এ পানীয় একগ্লাস পান করুন। এক সপ্তাহেই এর ফল পাবেন হাতেনাতে।

প্রতি রাতে ঘুমানোর আগে এ পানীয় পান করলে মেদ ভুঁড়ি কমবেই। এমনকি নিয়ন্ত্রণে থাকবে হাইপারটেনশন, ডায়াবেটিস। হৃদযন্ত্রও ভালো থাকবে।

'বাসার বাজার করেছেন তো? বাজার করুন চালডালে - সময় বাচাঁন, খরচ বাচাঁন। সেরা দামে সবকিছু মাত্র এক ঘন্টায়।'

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

To Top