ধর্ম ও জীবন

বিপদের সময় নবীজির শেখানো ৩টি দোয়া

বিপদের সময় নবীজির শেখানো ৩টি দোয়া

দুুনিয়ায় মানুষের বিপদের শেষ নেই। কাজে কর্মে কমবেশি বিপদ চলেই আসে সব সময়। মসিবত ও পেরেশানিতে পড়ে সঠিক জ্ঞান হারায় মানুষ। এসব থেকে মুক্তি লাভের উপায় হিসেবে নবীজি সা. উম্মতকে বিভিন্ন দোয়া শিখিয়েছেন। বিপদের সময়ের এ দোয়াগুলো শিখে রাখুন যাতে বিপদ থেকে উদ্ধার হতে পারেন।
সাদ ইবনে আবি ওক্কাস রা. বলেন, নবীজি সা. দুঃখ-কষ্টের সময় বলতেন : লা-ইলাহা ইল্লা আনতা সুবহানাকা ইন্নি কুনতু মিনাজ জোয়ালিমিন।
অর্থ : একমাত্র তুমি ছাড়া কোনো মাবুদ নেই। তোমার পবিত্রতা বর্ণনা করছি। নিশ্চয়ই আমি সীমালঙ্ঘনকারী। (তিরমিজি : ৩৫০০)
এ দোয়াটি কোরআনের বর্ণিত এবং দোয়াটি দোয়ায়ে ইউনুস নামে প্রসিদ্ধ।
এ দোয়া যে যত বেশি পড়বে আল্লাহ তায়ালা তাকে বিপদ থেকে মুক্ত করবেন। আসমা বিনতে ওমাইর রা. থেকে বর্ণিত, নবীজি সা. বলেন, আমি কি তোমাদের এমন কিছু শিখিয়ে দেব না যা তুমি দুশ্চিন্তা ও পেরেশানির মধ্যে পড়বে। সাহাবী বললেন, অবশ্যই শেখাবেন। নবীজি বললেন, দোয়াটি হচ্ছে : আল্লাহু আল্লাহ রব্বী লা উশরিকু বিহি শাইয়ান।
অর্থ : আল্লাহই আল্লাহ আমার প্রতিপালক। আমি তার সঙ্গে কোনো কিছু শরিক করি না। (আবু দাউদ : ১৫২৫) আনাস রা. থেকে বর্ণিত,
নবীজি সা. বলেন : আল্লাহুম্মা লা সাহলা ইল্লা মা জায়ালতাহু সাহলান, ওআনতা তাজআলুল হুযনা সাহলান ইযা শিইতা। অর্থ : ইয়া আল্লাহ, কোনো বিষয় সহজ নয়। হ্যাঁ, যাকে তুমি সহজ করে দাও। যখন তুমি চাও তখন তুমি মুশকিলকে সহজ করে দাও। (ইবনে হিব্বান : ৯৭৪)

'বাসার বাজার করেছেন তো? বাজার করুন চালডালে - সময় বাচাঁন, খরচ বাচাঁন। সেরা দামে সবকিছু মাত্র এক ঘন্টায়।'

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

To Top