বিনোদন

করিনার মা হওয়া নিয়ে কী বলছেন শাশুড়ি শর্মিলা

সাধারণত ৬ মাসের প্রেগন্যান্সি পেরোলেই উড বি মমরা একটু সাবধানে থাকেন। নায়িকারা তো মিডিয়া ছেড়ে শীতঘুমে চলে যান। ঐশ্বর্যা রাইকে তাঁর বেবি শাওয়ারের ছবি ছাড়া আর বিশেষ প্রেগন্যান্ট অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়নি। রানি মুখার্জির মেয়ে আদিরার তো এক বছর বয়স হতেই চলল। এখনও তিনি মিডিয়ার সামনে এসে উঠতে পারলেন না। এসবের কোনও কিছুকেই তোয়াক্কা না করে গত সাড়ে আট মাস ধরে কাজ করেই চলছেন করিনা। এই পূর্ণ গর্ভবতী অবস্থায় GRAZIA ম্যাগাজিনের কভার পেজে তিনি। কালো লেগ স্লিট পোশাকে ক্যামেরার সামনে তিনি মেলে ধরেছেন তাঁর বেবি বাম্প। যে কোনও শুটিংয়েই স্টারদের যথেষ্ট পরিশ্রম করতে হয়। মেক আপ, হেয়ার ডু, ক্যামেরার সামনে সঠিক পোজ……এর সবকটাই আরামসে করছেন করিনা। হেয়ার প্রোডক্টের এক লঞ্চে কয়েকমাস আগেই বলেছিলেন, মাতৃত্ব জীবনের এক স্বাভাবিক অঙ্গ। তিনি একজন ওয়ার্কিং ওম্যান। তাই যে কোনও স্বাভাবিক চাকুরিরতা মহিলার মতই তিনি স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে চান। তাই অতিরিক্ত বিশ্রামের তাঁর দরকার নেই, কারণ তিনি অসুস্থ নন। এরপর বেবি বাম্প নিয়েই বিভিন্ন Ramp এ হেঁটেছেন করিনা। সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়ের পোশাকে ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের Ramp এ তাঁকে দেখে উদ্বুদ্ধ হন দীপিকা পাড়ুকোনও। স্বামী সইফ আলি খানকে সঙ্গে নিয়ে সেরে ফেলেছেন বর-বধূর বেশে শুটিং আরও একটা ম্যাগাজিনের জন্য। আর মায়ের এই সব উদ্যোগে করিনার আসন্ন বেবি তো এখনই প্রায় সুপারস্টার! কেরিয়ারে অনেক সময়ই হেঁটেছেন বলিউডের উল্টোস্রোতে। সমালোচিত হয়েছেন প্রচুর। পাত্তা দেননি। এবার বাস্তব জীবনেও বলিউডের গড্ডালিকা প্রবাহে গা না ভাসিয়ে বুঝিয়ে দিলেন কেন তিনি স্বতন্ত্র।

এই মাসেই বাড়িতে নতুন অতিথি আসছে পতৌদি পরিবারে। তবে চিন্তিত নন করিনা। প্রেগনেন্সির সময়ও নিজেকে ওয়েল মেইনটেন রেখেছেন। কাজ করছেন যেমন তেমনি পার্টি হোক বা ফ্যাশন শো লাইমলাইটে করিনাই। এতেই খুশি শর্মিলা ঠাকুর। তাঁর মতে বউমা করিনা যেভাবে নিজেকে অ্যাকটিভ রেখেছেন তা নিয়ে গর্বিত তিনি। আপাতত সুখবর পাওয়ার অপেক্ষায় দিন গুনছেন দিদা শর্মিলা।।

দিকে, মাতৃত্বের সময় যত এগিয়ে আসছে, ততই যেন নিজেকে আরও ব্যস্ত করে তুলছেন করিনাকাপুর। হয়ে উঠছেন আরও মোহময়ী, আরও গ্ল্যামারাস। GRAZIA ম্যাগাজিনের ডিসেম্বর ইস্যুর কভারে করিনা। বেবি বাম্প দেখাতে এর আগে কোনও বলিউড হিরোইনকে বোধহয় দেখা যায়নি।

সাধারণত ৬ মাসের প্রেগন্যান্সি পেরোলেই উড বি মমরা একটু সাবধানে থাকেন। নায়িকারা তো মিডিয়া ছেড়ে শীতঘুমে চলে যান। ঐশ্বর্যা রাইকে তাঁর বেবি শাওয়ারের ছবি ছাড়া আর বিশেষ প্রেগন্যান্ট অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়নি। রানি মুখার্জির মেয়ে আদিরার তো এক বছর বয়স হতেই চলল। এখনও তিনি মিডিয়ার সামনে এসে উঠতে পারলেন না। এসবের কোনও কিছুকেই তোয়াক্কা না করে গত সাড়ে আট মাস ধরে কাজ করেই চলছেন করিনা। এই পূর্ণ গর্ভবতী অবস্থায় GRAZIA ম্যাগাজিনের কভার পেজে তিনি। কালো লেগ স্লিট পোশাকে ক্যামেরার সামনে তিনি মেলে ধরেছেন তাঁর বেবি বাম্প। যে কোনও শুটিংয়েই স্টারদের যথেষ্ট পরিশ্রম করতে হয়। মেক আপ, হেয়ার ডু, ক্যামেরার সামনে সঠিক পোজ……এর সবকটাই আরামসে করছেন করিনা।

হেয়ার প্রোডক্টের এক লঞ্চে কয়েকমাস আগেই বলেছিলেন, মাতৃত্ব জীবনের এক স্বাভাবিক অঙ্গ। তিনি একজন ওয়ার্কিং ওম্যান। তাই যে কোনও স্বাভাবিক চাকুরিরতা মহিলার মতই তিনি স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে চান। তাই অতিরিক্ত বিশ্রামের তাঁর দরকার নেই, কারণ তিনি অসুস্থ নন।

এরপর বেবি বাম্প নিয়েই বিভিন্ন Ramp এ হেঁটেছেন করিনা। সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়ের পোশাকে ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের Ramp এ তাঁকে দেখে উদ্বুদ্ধ হন দীপিকা পাড়ুকোনও। স্বামী সইফ আলি খানকে সঙ্গে নিয়ে সেরে ফেলেছেন বর-বধূর বেশে শুটিং আরও একটা ম্যাগাজিনের জন্য। আর মায়ের এই সব উদ্যোগে করিনার আসন্ন বেবি তো এখনই প্রায় সুপারস্টার! কেরিয়ারে অনেক সময়ই হেঁটেছেন বলিউডের উল্টোস্রোতে। সমালোচিত হয়েছেন প্রচুর। পাত্তা দেননি। এবার বাস্তব জীবনেও বলিউডের গড্ডালিকা প্রবাহে গা না ভাসিয়ে বুঝিয়ে দিলেন কেন তিনি স্বতন্ত্র।

'বাসার বাজার করেছেন তো? বাজার করুন চালডালে - সময় বাচাঁন, খরচ বাচাঁন। সেরা দামে সবকিছু মাত্র এক ঘন্টায়।'

To Top
[X]