বিনোদন

এবার যৌন হেনস্তা বিষয়ে মুখ খুললেন মাধুরী

এবার যৌন হেনস্তা বিষয়ে মুখ খুললেন মাধুরী

বলিউড তথা ভারতে #মিটু আন্দোলনের প্রবক্তা বাঙালি বলি অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত ফিরে গেছেন মার্কিনমুলুকে।

তবে তাতে থেমে যায়নি মিটু আন্দোলন। খ্যাতিমান অভিনেতা নানা পাটেকারের পর মিটুঝড়ে বিধ্বস্ত হয়েছেন পরিচালক সাজিদ খান, রাজকুমার হিরানি, সৌমিক সেন, সুরকার আন্নু মালিক, অভিনেতা অলোকনাথ, শিল্পী কৈলাশ খের। এমনকি মিটু বির্তকে জড়িয়েছে বিগবি অমিতাভ বচ্চনেরও নাম।

সমালোচিত হয়েছেন সালমান খান, ফারাহ খানসহ অনেকেই।

মিটু বিষয়ে মুখ খুলেছেন দীপিকা, কারিনা, সোনমসহ আরও অনেক বলি তারকা।

তবে এ বিষয়ে একসময় বলিপর্দা কাঁপানো অভিনেত্রী মাধুরী দীক্ষিতকে কিছুই বলতে দেখা যায়নি।

এবার এ বিষয়ে নিজের কথা জানালেন তিনি। তবে কারও দ্বারা যৌন হেনস্তার শিকার হয়েছেন এমনটি নয়। তিনি জানালেন, মিটু বির্তকে জড়িত দুই বলি ব্যক্তিত্বের প্রসঙ্গে।

চলচ্চিত্রে কাজ করতে এসে ওই দুই ব্যক্তিত্বের সঙ্গে দীর্ঘজীবনের ঘনিষ্ঠতা রয়েছে মাধুরীর।

অথচ অতিচেনা ওই দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে এমন অভিযোগে যারপরনাই অবাক হয়েছিলেন মাধুরী। এমনটিই জানালেন তিনি।

সম্প্রতি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপচারিতায় #মিটু আন্দোলন ও তাতে জড়িয়ে পড়া একসময়ের সহকর্মী অলোকনাথ এবং পরিচালক সৌমিক সেনের বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়।

জবাবে এসব কথা বলেন মাধুরী।

সেখানে তিনি বলেন, বেশ অস্বস্তিকর অবস্থায় পড়েছিলাম জেনে যে, এ দুজনের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ আসতে পারে! অতিনিকটের মানুষ দুটি কেমন যেন অচেনা হয়ে গেল আমার কাছে।

আর মানুষের অচেনা দিকের সঙ্গে পরিচিত হওয়া সবসময় সুখকর নয় বলে জানান মাধুরী।

ব্লকবাস্টার বলি সিনেমা ‘হাম আপকে হ্যায় কৌন’, ‘জামাইরাজা’সহ বহু ছবিতে মাধুরীর সঙ্গে কাজ করেছেন অলোকনাথ।

সব ছবিতেই মাধুরীর গুরুজনের ভূমিকায় দেখা গেছে অলোকনাথকে।

সেই অর্থে অলোকনাথকে বাবার মতোই শ্রদ্ধা করেন বলে জানান মাধুরী।

অথচ সেই অলোকনাথের বিরুদ্ধে এমন যৌন হেনস্তার অভিযোগ! প্রথমে বিশ্বাস করতে পারেননি মাধুরী।

একই রকম বিস্মিত হয়েছিলেন পরিচালক সৌমিক সেনের বেলায়। ‘গুলাব গ্যাং’ ছবিতে কাজ করতে গিয়ে পরিচালক সৌমিক সেনের সঙ্গে বেশ সখ্যতা গড়ে ওঠে মাধুরীর।

কোনো নারীর ওপর এমন আচরণ সৌমিক সেন থেকে আসতে পারে বলে ভাবতেই পারেননি তিনি।

মাধুরীর অভিব্যক্তি- ব্যাপারটি খুবই দুঃখজনক। তাদের আপনি চেনেন কিন্তু এভাবে চেনেন না। যে লোকটাকে আপনি চিনতেন তার সম্পর্কে আসা খবরের পাতার লেখা একেবারেই যেন মিলছে না। ব্যাপারটি মানসিকভাবে পীড়া দেয়।

প্রসঙ্গত অলোকনাথের বিরুদ্ধে #মিটু অভিযোগ এনেছিলেন চিত্রনাট্যকার ও পরিচালক বিনতা নন্দা ও অভিনেত্রী সন্ধ্যা মৃদুল। আর তিন নারী সৌমিক সেনের বিরুদ্ধে #মিটু অভিযোগ করেন।

সর্বাধিক পঠিত

To Top