তথ্য ও প্রযুক্তি

৬৫ দিন দেখা মিলবে না সূর্যের!

৬৫ দিন দেখা মিলবে না সূর্যের!

জানালা খুলে নরম রোদ ঘরে না ঢুকে যদি স্যাঁতস্যাঁতে অন্ধকার আবহাওয়া দেখেন, তাহলে মনটা নিশ্চয়ই একটু বিষণ্ণ হয়ে যায়? আর টানা কয়েকদিন এমন হলে তো রীতিমতো বিরক্ত লাগে। তাহলে ভেবে দেখুন তো, ৬৫ দিন সূর্য যদি দেখা না দেয় তাহলে কেমন লাগতে পারে!

অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি আলাস্কার ‘উতকিয়াগভিক’ শহরটিতে ৬৫ দিন ধরে সূর্যের দেখা মিলবে না। এই শহরের বাসিন্দার সংখ্যা প্রায় চার হাজার। গত ১৮ নভেম্বর সেখানে সবশেষ সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত দেখেছেন তারা। এই অবস্থাকে বলা হয়ে থাকে মেরু রাত (পোলার নাইট)।

জানা গেছে, ১৮ নভেম্বর দুপুর ১টা ৪৩ মিনিটে সূর্যাস্ত হয় এই শহরে। ২৩ জানুয়ারির আগে সেখানে রোদের আলো হাসবে না।

আবহাওয়াবিদ জুডসন জোনস বলেন, পোলার নাইট বা মেরু রাতের মানে হল সেখানে ২৪ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে সূর্যোদয় হবে না। তিনি বলেন, এটি প্রতি বছরই ঘটে। আপনি যদি সুমেরু বৃত্তের ঠিক ওপরের দিকে বসবাস করেন, তাহলে শীতকালে সূর্যবিহীন একটি দিন অবশ্যই পাবেন। তবে ভালো খবর হচ্ছে, গ্রীষ্মকালে কিন্তু এই অবস্থা পুরোপুরি উল্টো। সে সময় সূর্য কয়েকদিনের জন্য অস্ত যায় না।

তবে শুধু উটকিয়াগভিক শহরের মানুষকেই এমন অন্ধকারে সময় কাটাতে হয়, ব্যাপারটা এমন নয়। আলাস্কার আরও কয়েকটি শহরের মানুষ এমন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হন। তবে উটকিয়াগভিকের সর্বউত্তরের শহরগুলোর একটি হওয়ায় সেখানকার বাসিন্দারা সবার আগে ‘পোলার নাইট’ পান।

খবরে বলা হয়েছে, কাকটোভিক, পয়েন্ট হোপ এবং আনাকটুভুক পাস শহরের বাসিন্দারাও এক থেকে দুই মাস অন্ধকারে কাটাবেন। এসব শহরে সর্বশেষ সূর্যাস্ত হবে নভেম্বরের শেষদিক বা ডিসেম্বরের শুরুর দিকে।

সর্বাধিক পঠিত

To Top