তথ্য ও প্রযুক্তি

২৮ বছর ধরে চোখে আটকে ছিল একটি কন্টাক্ট লেন্স!

২৮ বছর ধরে চোখে আটকে ছিল একটি কন্টাক্ট লেন্স!

প্রায় ৩০ বছর আগে, যুক্তরাজ্যের ১৪ বছর বয়সী এক তরুণী ব্যাডমিন্টন খেলতে গিয়ে চোখে ব্যথা পান। এ সময়ে তার ওই চোখের কন্টাক্ট লেন্সটি হারিয়ে যায়। ২৮ বছর পর তার চোখের পাতা থেকে ওই লেন্সটি বের করেন চিকিৎসকরা। বিএমজে কেস রিপোর্টস জার্নালে প্রকাশিত হয় এই তথ্য।

এতো লম্বা সময় ধরে তার চোখের পাতায় আটকে ছিল লেন্স, কিন্তু ওই নারী তা ঘুণাক্ষরেও বুঝতে পারেননি। মাত্র ৪২ বছর বয়সে চোখের ডাক্তারের কাছে যান তিনি। কেন? কারণ তার বাম চোখের পাতা মাস ছয়েক ধরে ফুলে ছিল। ডাক্তার দেখেন, তার চোখের পাতার নিচে শক্ত একটি পিন্ড রয়েছে। এমআরআই করে দেখা যায়, এই পিন্ডটি আসলে একটি সিস্ট। পরে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ওই সিস্ট অপসারণ করা হয়। অপসারণ করার পর দেখা যায়, সিস্টের ভেতরে ছিল একটি চোখের লেন্স।

ওই নারী কিন্তু ততদিনে ভুলে গেছেন কী করে তার চোখে লেন্স আটকে ছিল। বরং তার মায়ের মনে ছিল ব্যাডমিন্টন খেলতে গিয়ে চোখের লেন্স হারানোর ঘটনা। তিনিই চিকিৎসকদের জানান এ তথ্য। চিকিৎসকরা জানান, ব্যাডমিন্টনের শাটলককের আঘাতে লেন্সটি তার চোখের ওপরের দিকে চলে যায় এবং সেখানেই আটকে ছিল গত ২৮ বছর।

তবে ২৮ বছর ধরে এই লেন্সটি কোনো সমস্যা করেনি ওই নারীর চোখে, এই ব্যাপারটি বেশ অদ্ভুত। তার বাম চোখের পাতা একটু ভারী ছিল সবসময়, কিন্তু তা নিয়ে তিনি কখনো চিন্তিত হননি।

সর্বাধিক পঠিত

To Top